শনিবার, ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৮:১৩ পূর্বাহ্ন

বাংলাদেশ টি এস্টেট স্টাফ অ্যাসোসিয়েশন নির্বাচনে জাকারিয়া-আমিন পরিষদের জয়

স্টাফ রিপোর্টারঃ / ৩৪ শেয়ার
আপডেট : মঙ্গলবার, ২০ ডিসেম্বর, ২০২২, ১০:৫৫ পূর্বাহ্ন

বাংলাদেশ টি এস্টেট স্টাফ অ্যাসোসিয়েশন কেন্দ্রীয় কার্যকরী সংসদ নির্বাচনে সব কটি পদে জাকারিয়া-আমিন পরিষদ জয়লাভ করেছে। রবিবার দেশের ১২টি অঞ্চলের ১২টি ভোটকেন্দ্রে jjjসকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ চলে।

এবারের নির্বাচনে মোট দুই হাজার ৩৩১ জন ভোটারের মধ্যে দুই ২৫৪ জন তাদের ভোট দিয়েছেন। কেন্দ্রগুলোতে ভোটগণনা শেষে রাত সাড়ে ১১টার দিকে শ্রীমঙ্গলে সংগঠনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে নির্বাচনের ফল ঘোষণা করেন নির্বাচন সাব-কমিটির আহ্বায়ক আতাউর রহমান।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন– নির্বাচন সাব-কমিটির সদস্য সচিব বশির আহমদসহ অন্য সদস্যরা।

এবারের নির্বাচনে সভাপতি পদে সাবেক সাধারণ সম্পাদক জাকারিয়া আহমদ (চেয়ার) এক হাজার ৫৯৩ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বর্তমান সভাপতি মাহবুব রেজা (বটগাছ) পেয়েছেন ৬০৮ ভোট। সহ-সভাপতি (দুটি পদ) পদে কংকন জ্যোতি ভট্টাচার্য (দেয়াল ঘড়ি) এক হাজার ২০৫ ভোট এবং শেখ কাওসার মিয়া (ছাতা) এক হাজার ৯৩ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। এ পদের অন্য প্রার্থীরা হলেন– শফিউল আলম শাহীন (মাছ) চার হাজার ৫২০ ভোট, রিংকু মিত্র (দোয়াত কলম) ৩৪৭ ভোট, বলাই কায়স্থ (কুড়াল) ২৯৭ ভোট এবং আমির আলী (বালতি) ২৮৭ ভোট।

সাধারণ সম্পাদক পদে আমিনুর রহমান (মই) এক হাজার ৮৪ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সঞ্জয় কান্তি ভট্টাচার্য (চাকা) পেয়েছেন ৭৫৪ ভোট। এ পদের অপর প্রার্থী বর্তমান সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান (আনারস) পেয়েছেন ২২০ ভোট।

সহ-সাধারণ সম্পাদক পদে আলমগীর চৌধুরী (হরিণ) এক হাজার ৪৮২ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী কাজী তমিম উল আম্বিয়া (মোমবাতি) পেয়েছেন ৪৪৫ ভোট।

সাংগঠনিক সম্পাদক পদে গঙ্গেশ রঞ্জন দেব (বাই-সাইকেল) এক হাজার ১২৬ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রদীপ প্রসাদ যাদব (মোবাইল ফোন) পেয়েছেন ৮১১ ভোট।

কোষাধ্যক্ষ পদে সুরঞ্জিত দাস (কবুতর) এক হাজার ২৪৮ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী শেখর চৌধুরী (উড়োজাহাজ) পেয়েছেন ৬৯২ ভোট।

প্রচার, সমাজসেবা ও ক্রীড়া সম্পাদক পদে মো. ইব্রাহিম মিয়া (মোরগ) এক হাজার ৭০ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী খায়রুল ইসলাম (প্রজাপতি) পেয়েছেন ৮০০ ভোট।

শিক্ষা, গবেষণা ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক পদে মাহমুদুর রহমান রাসেল (চশমা) এক হাজার ২৬ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সুনীল পাল (হারিকেন) পেয়েছেন ৫৯৪ ভোট। এ পদের অপর প্রার্থী রজত কান্তি দেশমুখ (ফুটবল) পেয়েছেন ৩৭৩ ভোট।

এ ছাড়া আঞ্চলিক প্রতিনিধি পদে যারা নির্বাচিত হয়েছেন তারা হলেন– নর্থ সাউথ অঞ্চল সভাপতি পদে আব্দুল মালিক, সাধারণ সম্পাদক কাওসার আহমেদ (বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায়)। জুড়ী অঞ্চল সভাপতি পদে শাহীন আহমদ, সাধারণ সম্পাদক পদে লিটন দাশ; লংলা অঞ্চল সভাপতি পদে রফিকুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক পদে আব্দুল তাহিদ লিমন। মনু অঞ্চল সভাপতি পদে তানভীর হাসান, সাধারণ সম্পাদক পদে দিলীপ যাদব (বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত)। দলই অঞ্চল সভাপতি পদে মন্তাজ সিদ্দিকী, সাধারণ সম্পাদক পদে ইমন দেবনাথ। বালিশিরা উত্তরাঞ্চল সভাপতি পদে নীলমোহন সিংহ, সাধারণ সম্পাদক পদে কামাল হোসেন। বালিশিরা পূর্বাঞ্চল সভাপতি পদে মতিউর রহমান, সাধারণ সম্পাদক পদে সিরাজুল ইসলাম। বালিশিরা পশ্চিমাঞ্চল সভাপতি পদে বদরুল আলম (বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতা), সাধারণ সম্পাদক পদে শ্রীকান্ত আহীর। লস্করপুর পূর্বাঞ্চল সভাপতি পদে দেবদাশ ভট্টাচার্য (বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায়), সাধারণ সম্পাদক পদে সুলতান আহমদ। লস্করপুর উত্তর সভাপতি পদে সুনীল বিশ্বাস (বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত), সাধারণ সম্পাদক পদে বিক্রম সিংহ (বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায়)। লস্করপুর পশ্চিমাঞ্চল সভাপতি পদে আব্দুল ওয়াহিদ, সাধারণ সম্পাদক পদে এবং চট্টগ্রাম অঞ্চল সভাপতি পদে অমল কান্তি দাশ, সাধারণ সম্পাদক পদে অসীম চাকমা।


আরও পড়ুন