বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৬:০৮ পূর্বাহ্ন

এক সন্তানের জননীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ

জাফলং নিউজ ডেস্ক / ১০৩ শেয়ার
আপডেট : সোমবার, ৩০ জানুয়ারী, ২০২৩, ৯:৪৯ অপরাহ্ন

সুনামগঞ্জ জেলার শাল্লা উপজেলার ৩নং সদর বাহাড়া ইউপির সুখলাইন গ্রামের বাসিন্দা এক সন্তানের জননীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। একই গ্রামের মৃত হরলাল দাশের ছেলে হিমাদ্রি দাশ হিমু (৪০) এ কাণ্ড ঘটিয়েছে বলে ওই নারী বাদী হয়ে শাল্লা থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

ওই নারী গত শনিবার (২৮জানুয়ারি) রাতে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

লিখিত অভিযোগে তিনি উল্লেখ করেন- গত ২৬ জানুয়ারি দিবাগত অনুমান রাত আড়াইটার দিকে ওই নারীর ভাঙাচোরা বসত ঘরের পেছনের দরজা দিয়ে ঘুমন্ত অবস্থায় তাকে ধর্ষণের চেষ্টা করেন হিমাদ্রি দাশ হিমু। ওইদিন সরস্বতী পূজার রাত হওয়ায় ঘরের পাশে পূজা মণ্ডপের সাউন্ড বক্সের শব্দের কারণে চিৎকার করলেও কেউ শুনতে পাননি। এমন সময় হিমাদ্রি দাশ হিমু ঘরে রান্নার কাজে ব্যবহৃত দা হাতে নিয়ে ওই নারীর ৫ বছরের ঘুমন্ত শিশু সন্তানের গলায় ধরে রাখে। হিমাদ্রি এ সময় হুমকি দিয়ে বলেন-, চিৎকার করলে তার ৫বছরের শিশুকে খুন করে ফেলবেন। প্রাণের ভয়ে ওই নারী কৌশলে হিমাদ্রির কাছ থেকে একদিন সময় চেয়ে নেন।

পরে থানায় গিয়ে অভিযোগ করেন ওই নারী।

এ বিষয়ে হিমাদ্রি দাশ বলেন, আমাকে ওই নারী মিস কল দিছেন। ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ মিথ্যা। কয়দিন আগে ওই নারীর স্বামীকে কিস্তির টাকার জন্য সংশ্লিষ্টরা চাপ দেন। আমি ১ হাজার টাকা দিয়েছি। আমার টাকা এখনো ফেরত পাইনি। এখন টাকা না দেওয়ার জন্য মিথ্যা অভিযোগ তুলেছেন ওই নারী।

তবে ওই নারী মিস কলের বিষয়টি অস্বীকার করে বলেন- আমি মিসকল দেইনি।

এ ব্যাপারে শাল্লা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমিনুল ইসলাম বলেন, ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগটি খতিয়ে দেখা হবে। যদি সত্য হয় তবে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে আইননানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।


আরও পড়ুন