সোমবার, ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৯:৫৫ অপরাহ্ন
/ ফিচার
পলাশ। পলাশ ফুলের আরেক নাম ‘অরণ্যের অগ্নিশিখা’। যার বৈজ্ঞানিক নাম Butea monosperma। এই বৃক্ষটি Fabaceae পরিবারের সদস্য। পলাশ ফুলের রং হলুদ, লাল ও লালচে কমলা রঙ এই তিন রকম হয়। আরও পড়ুন
উদ্বোধনের অপেক্ষায় আধুনিক স্থাপত্যশৈলীতে নির্মিত দেশের দৃষ্টিনন্দন সিলেট কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল নির্মাণ। স্থানীয় সরকারমন্ত্রীসহ তিন মন্ত্রীর শিডিউল পেলেই টার্মিনালের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হবে। বিশ্বব্যাংকের অর্থায়নে ৬৫ কোটি টাকা ব্যয়ে ৮
কুলাউড়া উপজেলার পৌরসভায় প্রবেশ স্থানে দাঁড়িয়ে আছে লাল টুকটুকে কৃষ্ণচূড়া ফুলের গাছটি। দেখে যে কারো মনে হবে, পৌরসভায় প্রবেশে সবাইকে স্বাগত জানাতেই প্রকৃতির এমন লীলাখেলা। কৃষ্ণচূড়ার ঝরে পড়া পাপড়িতে সবুজ
পলাশ। পলাশ ফুলের আরেক নাম ‘অরণ্যের অগ্নিশিখা’।  যার বৈজ্ঞানিক নাম Butea monosperma। এই বৃক্ষটি Fabaceae পরিবারের সদস্য। পলাশ ফুলের রং হলুদ, লাল ও লালচে কমলা রঙ এই তিন রকম হয়।
মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায় খাল, বিল, রাস্তার পাশে সহজেই দেখা মিলছে না ঢোলকলমি বা গ্রাম্য ভাষায় বেদমা কেউ বলে কুলুম গাছ। গাছগুলো দেখতে লতার মতো এবং ফুলগুলো মাইকের মতো। ঢোলকলমির বৈজ্ঞানিক নাম
 ‘হারিকেন’ নামটা শুনা মাত্র অনেকের অতীতের কথা মনে করিয়ে দেয়। এটি গ্রামীন ঐতিহ্যের প্রতীকগুলোর মধ্যে অন্যতম একটি। বিদ্যুৎবিহীন গ্রামের অন্ধকার দূর করার একমাত্র অবলম্বন ছিল হারিকেনের আলো।   হারিকেন হচ্ছে
‘লজ্জাবতী’, আমরা সবাই কমবেশি এই উদ্ভিদটির সঙ্গে পরিচিত। ‘লজ্জাবতী’ দেখেছেন অথচ ছুয়ে তার লজ্জার প্রকাশিত হতে দেখেনি এমন পাওয়া দুস্কর। লজ্জাবতীর ইংরেজী নাম ‘মিমোশা’। মিমোশা মেয়েদের নাম, কাকতালীয়ভাবে হলেও সত্য
লাল টিনের চাল, চারিদিকে নাই বেড়া। চোখ খোললেই শুধু সবুজ আর সবুজ। আকাশের নীল এসে যেন দিগন্ত ছুঁয়েছে। যতদূর চোখ যায়, চারদিকে ছোট-বড় সবুজ পাহাড়। বিভিন্ন জাতের রঙ বেরঙের ফুল